এটি জাতি-বিধ্বংসী ও চরম আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত; শায়খ আহমাদুল্লাহ

0
624

সম্প্রতি একটি সংসদ অধিবেশনে সাংসদ ফখরুল ইমাম দাবি করেন যে, পাঠ্যপুস্তক থেকে ইসলাম ধর্মের বিভিন্ন গদ্য, পদ্য বাদ দিয়ে দেয়া হচ্ছে। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে নতুন করে আলোচনায় আসে ধর্মীয় শিক্ষার বিষয়টি। বিভিন্ন ইসলামী রাজনৈতিক দল এবিষয়ে রাজপথে প্রতিবাদও জানান।

এবার এবিষয়ে মুখ খুললেন হালের জনপ্রিয় ইসলামী ব্যাক্তিত্ব শায়খ আহমাদুল্লাহ। নিজের ভ্যারিফাইড ফেসবুক পেইজে বেলা ১২টার দিকে উনি এবিষয়ে একটি পোস্ট আপলোড করেন। পাঠকদের জন্য হুবহু তাঁর পোস্টটি তুলে ধরা হল…

“পাঠ্যপুস্তক ও জাতীয় শিক্ষাক্রম থেকে ইসলামী শিক্ষাকে সঙ্কুচিত করা চরম উদ্বেগজনক বিষয়। এটি জাতি-বিনাশী, জাতি-বিধ্বংসী ও চরম আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত।

এমনিতেই সকল ক্ষেত্রে মূল্যবোধহীনতার চর্চা বেড়েছে। মূল্যবোধহীনতার মূলে ধর্মীয় শিক্ষার অভাব অন্যতম কারণ। এহেন পরিস্থিতিতে নাগরিকদের নৈতিকভাবে বলীয়ান করার জন্য ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষার পরিধি যখন আরো বাড়ানো জরুরি, তখন তা আরো সঙ্কুচিত করা অযৌক্তিক ও অপরিণামদর্শী।

আশা করি, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করবেন। ধর্মীয় শিক্ষাকে শিক্ষাক্রমের সর্বস্তরে গুরুত্বের সঙ্গে প্রতিস্থাপন করবেন।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here