ঈদুল আজহা কেন্দ্রিক যত সুন্নাহ

0
165

রাত পোহালেই হাজির হবে মুসলমানদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ইদুল আজহা। ইতিমধ্যেই নিজ নিজ কুরবানির পশু ক্রয় এবং যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

কুরবানিকে আরবি ভাষায় ‘উযহিয়্যা’ বলা হয়। ‘উযহিয়্যা’ শব্দের আভিধানিক অর্থ হলো ওই পশু যা কুরবানির দিন জবাই করা হয়। কুরবানির তাৎপর্য হলো ত্যাগ, তিতিক্ষা স্বীকার করা এবং প্রিয়বস্তুকে আল্লাহপাকের সন্তুষ্টির জন্য উৎসর্গ করা।

শরিয়তের পরিভাষায় আল্লাহতাআলার সন্তুষ্টি লাভের উদ্দেশ্যে নির্দিষ্ট সময়ে নির্দিষ্ট পশু জবাই করাকে কুরবানি বলে। ঈদের দিন কেন্দ্র করে রাসূলাল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর একাধিক সুন্নাহ রয়েছে। একনজরে দেখে নিন ঈদুল আজহা কেন্দ্রিক এসব সুন্নাহ আমল।

• ঈদের নামাযের আগে গোসল করা (ইবনু মাজাহ-১৩১৫)
• ঈদগাহে যাবার আগে সুগন্ধি ব্যবহার করা (মুসলিম-১১১৭)
• উত্তম পোশাক পরিধান করা (বুখারি-১১০৬)
• এক রাস্তা ধরে ঈদগাহে যাওয়া এবং অন্য এক রাস্তায় ফিরে আসা (বুখারি-৯৪৩)
• কুরবানির গোশত দিয়ে ঈদের দিনের খাবার শুরু করা (ইবনু হিব্বান-২৮১৪)
• উচ্চস্বরে তাকবির বলতে বলতে ঈদগাহে যাওয়া (ইবনে আলী সায়বা – ৫৬৬৭)
• ঈদের সালাত আদায় ও খুতবা শোনা (বুখারি – ২০১৮)
• ঈদুল আজহার সালাত শেষ করে তবে কুরবানি করা (বুখারি-৯৮৩)
• ঈদের মাঠেই পশু কুরবানি করা (বুখারি-৯৮২)
• নিজ হাতে কুরবানির পশু জবেহ করা (সুনানে আন নাসায়ী-৪৪১৮)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here