১৯ দিন পর ভক্তের স্ত্রী উদ্ধার, এখনও লাপাত্তা খেতা বাবা

0
243

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় ফজলুল হক ওরফে খেতা শাহ নামে কথিত এক ফকিরের হাত ধরে উধাও হওয়া নারীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। দীর্ঘ ১৯ দিন পর সোমবার (১১ জুলাই) গাজীপুরের টঙ্গী থেকে ওই নারীকে উদ্ধার করা হয়। তবে এখনো অধরা ভণ্ড ফকির খেতা শাহ। 

রাতে উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে তারাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের বলেন, ওই নারীকে উদ্ধারের সময় খেতা শাহকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাকে অচিরেই গ্রেপ্তার করা হবে।

ওসি বলেন, উদ্ধার হওয়া ওই নারী বর্তমানে আমাদের হেফাজতে রয়েছে। মঙ্গলবার (১২ জুলাই) জবানবন্দি দেওয়ার জন্য তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

অভিযুক্ত ফজলুল হক ওরফে খেতা শাহ (৬০) নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার হীরণপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি আধ্যাত্মিক নেতা খেতা শাহ নামে পরিচিত। দেড় মাস আগে তার সঙ্গে জেলার তারাকান্দার শফিকুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তির পরিচয় হয়। খেতা শাহকে আধ্যাত্মিক ফকির ভেবে তার ভক্ত বনে যান শফিকুল। সংসারের উন্নতি আর মনের বাসনা পূরণের ধারণা থেকে দুই চাচার পরামর্শে স্থানীয় মাজারে এনে আশ্রয় দেন নিজের বাড়িতে। স্ত্রীকে বলেছিলেন ভালোভাবে আপ্যায়ন করতে। সবকিছুই ভালোই চলছিল। 

তবে গত ২২ জুন দুপুর ১২টার দিকে খেতা শাহকে নিয়ে শফিকুলের স্ত্রী তার বাবার বাড়ি ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় যাওয়ার কথা বলে লাপাত্তা হন দুইজনই। এ ঘটনার পর খেতা শাহর নামে থানায় লিখিত অভিযোগ দেন শফিকুল ইসলাম। গত ২ জুলাই তার অভিযোগ মামলা হিসেবে নথিবদ্ধ করা হয় সংশ্লিষ্ট থানায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here