ত্রাণ বন্টনে অনিয়ম, গণধোলাই দিয়ে চেয়ারম্যানকে ধানক্ষেতে ফেলে দিলো জনতা

0
1962

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার রাজানগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম জুয়েল ও তাঁর পেটোয়া বাহিনীকে পিটিয়ে খেতে ফেলে দিয়েছে বিক্ষুব্ধ জনতা।  বিষয়টি নিয়ে পুরো এলাকাজুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ৮ জুলাই শুক্রবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে শ্যামারচর রোডে  ইউনিয়নের ফাতেমানগর  সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এই  হামলার ঘটনা ঘটে।

৮নং ওয়ার্ডের কয়েকজন সাংবাদিকদের জানান, মেম্বার সাইদ আহমদ খসরু আমাদের নামের লিস্ট চেয়ারম্যানের কাছে জমা দেন। ত্রাণ পাওয়ার জন্য আমরা ঘটনার দিন ঠিক সময়ে ত্রাণ আনতে গেলে আমাদেরকে ত্রাণ না দিয়ে তাড়িয়ে দেন চেয়ারম্যান।  তখন আমরা মেম্বারের সঙ্গে যোগাযোগ করি।

তিনি বলেন, আমি তোমাদের নাম দিয়েছি তোমরা চেয়ারম্যানের সঙ্গে যোগাযোগ করো। বিক্ষুব্ধ জনতা চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম জুয়েলকে পরিষদ থেকে দিরাই যাওয়ার পথে রাস্তায় আটকিয়ে তাদের নাম লিস্ট থেকে বাদ পড়ার কথা জানতে চান। এসময় চেয়ারম্যান রাগান্বিত হয়ে দু’চার জনের ওপর হাত তুললে বিক্ষুব্ধ জনতা মিলে চেয়ারম্যানকে বেধড়ক মারধর করে রাস্তার পাশে আমন খেতে ফেলে দেয়।

৮নং ওয়ার্ড মেম্বার ও প্যানেল চেয়ারম্যান  সাইদ আহমদ খসরু জানান,  আমরা কজন খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই। এসময় চেয়ারম্যানের সঙ্গে থাকা সঙ্গীরা আমার ওপরও হামলা চালায়। এতে আমার হাত ভেঙ্গে যায় তখন উভয় পক্ষে বেশ কজন গুরুতর আহত হন। ঘটনাস্থল থেকে উভয় পক্ষে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায় স্থানীয়রা। বিষয়টি নিয়ে চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম জুয়েলের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এ ব্যাপারে  দিরাই থানার (ওসি) সাইফুল ইসলাম জানান, আমরা এখনও লিখিত অভিযোগ পাইনি অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here