উৎসবে মেতে উঠে বিয়ের আসরেই গুলি, নিহত হলেন কনে

0
119

আনন্দ উৎসবে মেতে উঠে বিয়ের আসরে ছোড়া গুলিতে নিহত হয়েছেন কনে। কিছুটা নতুন রীতিতে বিয়ে উপযাপনের জন্যই এই গুলি ছোড়া হলেও তা ঠেকেছে কনের মৃত্যুতে। এমন চাঞ্চল্যকর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে ইরানের ফিরোজাবাদ শহরে। বার্তা সংস্থা নিউইয়র্ক পোস্ট এক প্রতিবেদনে এমনটাই জানিয়েছে।

নিউইয়র্ক পোস্টের প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, বিয়ের অনুষ্ঠানের সময় এটিকে স্মরণীয় করে রাখতে গুলি ছোড়ার সিদ্ধান্ত নেন একজন অতিথি। এ সময় ছোড়া গুলির একটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে মাহভাশ লেঘাই (২৪) নামে ওই কনের মাথার খুলিতে আঘাত হানে। ওই গুলিটিই আরও দুই অতিথির শরীরে আঘাত হানে। মাহভাশ লেঘাইকে আহতাবস্থায় হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। অন্য দুই অতিথি সামান্য আহত হন।

বিয়ের উৎসব উদযাপনে এভাবে গুলি ছুড়া ইরানে অবৈধ বলেই নিউইয়র্ক টাইমসের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। 

স্থানীয় পুলিশের মুখপাত্র কর্নেল মেহেদি জোকার বলেছেন, ফিরোজাবাদ শহরের একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে গুলির গুলি চালানোর খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে সেখানে কর্মকর্তাদের পাঠানো হয়। যিনি গুলি ছুড়েছিলেন তিনি বরের চাচাতো ভাই (৩৬)। ওই ব্যক্তি ‘অস্ত্রের নিয়ন্ত্রণ দক্ষ’ ছিলেন না বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

গুলি কনেকে আঘাতের পরই ওই ব্যক্তি অস্ত্র নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। তবে পরে তাকে গ্রেফতার করা হয়। যে অস্ত্র দিয়ে গুলি করা হয় সেটি লাইসেন্সবিহীন হান্টিং রাইফেল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহত কনে মাহভাশ লেঘাই সম্প্রতি মনোবিজ্ঞান থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেছিলেন। তিনি একজন সমাজকর্মীও ছিলেন। মাদক সেবনকারীদেরকে আসক্তি দূর করতে তিনি সাহায্য করতেন বলে জানা গেছে। তার ইচ্ছা অনুযায়ী মৃত্যুর পর তার অঙ্গ তিনজনকে দান করেছেন পরিবারের সদস্যরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here