মাফিয়ারা দেশ দেউলিয়া করে দিয়েছে; শ্রীলঙ্কার পথে পাকিস্তান: ইমরান

0
112

শ্রীলঙ্কা হবার পথেই আছে পাকিস্তান এমন দাবি করেছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের। শ্রীলঙ্কার মতোই পাকিস্তানের রাজপথেও প্রতিবাদী মানুষের ঢল নামতে পারে বলে শঙ্কা তার। বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে জ্বালানি সংকটে ইসলামাবাদ। ইমরানের আশঙ্কা, আর বেশি দেরি নেই।

তবে এমন পরিস্থিতি সামলাতে তৈরি পাকিস্তান সরকারও। অতি শীঘ্রই দেশের সম্পত্তি বিক্রির পদক্ষেপ করতে চাচ্ছে পাক সরকার। শনিবার (২৩ জুলাই) এই সংক্রান্ত নতুন অর্ডিন্যান্স পাশ হয়েছে।

নতুন এই অর্ডিন্যান্সের ফলে আপদকালীন পরিস্থিতিতে দেশের সম্পত্তিকে বিদেশে বিক্রি করার সময় কেউ তার প্রতিবাদে কোনও পিটিশন দাখিল করলেও আদালত সেটাকে গ্রাহ্য করবে না। আপাতত ২ বিলিয়ন থেকে আড়াই বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে দেশের তেল ও গ্যাস সংস্থার শেয়ার ও সরকারি বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র আরব সংযুক্ত আমিরশাহীকে বিক্রি করে বিদেশি মুদ্রা বাড়াতে মরিয়া পাকিস্তান।

গত মে মাসেই সৌদি আরব জানিয়ে দিয়েছিল, পুরনো ঋণ শোধ করতে অপারগ পাকিস্তানকে তার আর কোনও রকম অর্থসাহায্য করবে না। এই পরিস্থিতিতে ঋণ শোধ করতে দেশীয় সম্পত্তি বিক্রির পদক্ষেপ ছাড়া কার্যত আর উপায় নেই পাকিস্তানের।

এমন জটিল সময়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মনে করছেন, আসিফ জারদারি ও শরিফ পরিবারের ‘মাফিয়া’রা তাদের অবৈধ সম্পত্তি বাঁচাতে তিন মাসের মধ্যেই পাকিস্তানকে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ভাবে দেউলিয়া হওয়ার দিকে ঠেলে দিয়েছে।

তিনি বলেন, ”নিশ্চিত করেই এটা বলতে পারি যে, আমার ‘হাকিকি আজাদি’র আহ্বানে সাড়া দেবে পাকিস্তানের জনতা। এই মাফিয়াদের এভাবে লুটপাট চালিয়ে যেতে দেবে না ওরা।”

করোনা মহামারীর পর পাক অর্থনীতি মুখ থুবড়ে পড়েছে। দেশটিতে রপ্তানির তুলনায় আমদানি বিপুল হারে বেড়ে যাওয়ায় বিদেশি মুদ্রার ব্যয়ের পরিমাণ আয়ের চাইতে বেশি দাঁড়িয়েছে। তার উপর রাজনৈতিক ডামাডোলে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ শৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে। সবমিলিয়ে পাকিস্তান কার্যত দেউলিয়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here