নেইমারের বিরুদ্ধে বড় অভিযোগ; বিশ্বকাপ কাটাতে পারেন জেলে বসে

0
72

সান্তোস থেকে ২০১৩ সালে বার্সেলোনায় যোগ দেন নেইমার। এই দলবদলে অনিয়মের অভিযোগ শুরু থেকেই লেগে আছে নেইমারের পিছনে। তা নিয়ে মামলাও হয়েছিল বার্সেলোনার আদালতে। এত দিন ধরে সেই মামলা চলার পর এবার ব্রাজিলিয়ান এই তারকাকে জালিয়াতি ও দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত করেছেন আদালত।

আইনজীবীরা নেইমারের দুই বছরের কারাবাসের শাস্তির আবেদন করেছেন। আর তাই যদি হয় তবে বড় আকারের জটিলতায় জড়াবেন নেইমার। কাতার বিশ্বকাপের সময়টায় বিশ্বের বড় এই তারকাকে থাকতে হবে জেলে।

আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে প্রায় দুই সপ্তাহ এই মামলার শুনানি চলবে বার্সেলোনার আদালতে।

এর ঠিক কাতারে ২১ নভেম্বর শুরু হবে বিশ্বকাপ। তার আগের মাসে কাঠগড়ায় দাঁড়ানোটা ব্রাজিল তারকার জন্য বড় ধাক্কাই হবে। সংবাদ সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, নেইমারের পাশাপাশি তাঁর বাবা ও মা, বার্সেলোনার সাবেক দুই সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ ও সান্দ্রো রোসেলকেও একই মামলায় আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।

বার্সায় চার মৌসুম থেকে ২০১৭ সালে রেকর্ড ২২ কোটি ২০ মিলিয়ন ইউরোয় পিএসজিতে যোগ দেন নেইমার। অনিয়মের অভিযোগটা উঠেছে তাঁর সান্তোস থেকে বার্সায় আসার দলবদল নিয়ে। নেইমার সান্তোসে থাকতে তাঁর স্বত্বের মালিক ছিল ব্রাজিলের প্রতিষ্ঠান ডিআইএস। তারাই মূলত এই মামলা দায়ের করে। অভিযোগ দুই পক্ষই দলবদলের আসল ফি গোপন রেখেছে।

বার্সেলোনা আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছিল, ৫ কোটি ৭১ লাখ ইউরোয় নেইমারকে কেনা হয়েছে। এর মধ্যে ৪ কোটি ইউরো পেয়েছে নেইমারের পরিবার এবং ১ কোটি ৭১ লাখ ইউরো যায় সান্তোসের কাছে। সান্তোস যে ১ কোটি ৭১ লাখ ইউরো পেয়েছে, সেখান থেকে ৬৮ লাখ ইউরো পেয়েছে ডিআইএস। প্রতিষ্ঠানটি অভিযোগ তুলেছে, বার্সা ও নেইমার অভিসন্ধি করে দলবদলের আসল ফি গোপন করেছে।

তবে নেইমার শুরু থেকেই দাবি করে আসছেন, তার সব মনোযোগ ঘিরে শুধু ফুটবল এবং দলবদলের বিষয়গুলো নিয়ে তিনি নিজের বাবাকে অন্ধের মতো বিশ্বাস করে এসেছেন। তার বাবাই তার এজেন্ট।

আইনজীবীরা নেইমারের দুই বছরের কারাবাসের শাস্তির আবেদন করেছেন। সেক্ষেত্রে বিশ্বকাপ মিসের ঝুঁকি তো আছেই। তবে স্পেনের আদালতে বিষয়টি আর্থিক জরিমানা দিয়েও নিষ্পত্তির সুযোগ থাকছে। এর আগে বহু ফুটবল তারকাকেই এমন জটিলতায় পড়তে হলেও তা শেষ পর্যন্ত ক্যারিয়ারে প্রভাব রাখেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here