নিজেরাই গেটবার তুলে পারাপারের চেষ্টা করেছিলেন সেই যাত্রীরা

0
117

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের খৈয়াছড়া ঝরনা দেখে ফেরার পথে ট্রেনের ধাক্কায় ১১ পর্যটক নিহতের ঘটনায় বেরিয়ে এসেছে নতুন তথ্য। একাধিক প্রত্যক্ষদর্শীর দাবি, রেললাইনের গেটবার নিজেরাই তুলে পার হবার সময় মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনার শিকার হন যাত্রীরা।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) বেলা পৌনে ১টা নাগাদ খৈয়াছড়া ইউনিয়নের পূর্ব খৈয়াছড়া গ্রামের ঝরনা এলাকার রেলক্রসিং এ মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শুক্রবার সকালে চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার আমান বাজার এলাকা থেকে একটি মাইক্রোবাসে খৈয়াছড়া ঝরনা দেখতে আসেন মাইক্রোবাসের চালকসহ ১৮ যুবক। ঝরনা দেখা শেষে ওইদিন বেলা পৌনে ১টার দিকে ফেরার সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথে গেটবার দেওয়া দেখতে পান তারা।

গেটকিপার রেলপথ পারাপারের রাস্তা বন্ধ করে জুমার নামাজে যাওয়ায় যুবকরা তাকে খুঁজে পাননি। তারা গেটকিপারকে না পেয়ে নিজেরা গেটবার তুলে রেলপথ অতিক্রমের চেষ্টা করে। এ সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা মহানগর প্রভাতি ট্রেন তাদের বহনকারী মাইক্রোবাসকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই ১১ জন নিহত হন, আহত হন একজন। 

আহতজনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে মিরসরাই সদর এলাকার একটি বেসরকারি হাসপাতাল ও পরে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করে।

দুর্ঘটনার পরপর মিরসরাই থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের কর্মীরা মাইক্রোবাস থেকে হতাহতদের উদ্ধার করেন। 

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (মিরসরাই সার্কেল) লাবিব আব্দুল্লাহ ঘটনাস্থলে গিয়ে সাংবাদিকদের জানান, ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন ১১ যুবক। আহত একজনকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনাকবলিত মাইক্রোবাস থেকে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। তবে হতাহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here