অর্থ লুটের মামলায় পুত্রসহ পাক প্রধানমন্ত্রী শেহবাজকে আদালতে তলব

0
233

এক হাজার ৬০০ কোটি পাকিস্তানি রুপি লুটের মামলায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ ও তার ছেলে হামজা শেহবাজকে তলব করেছে লাহোরের বিশেষ একটি আদালত। অর্থপাচার মামলায় অভিযোগ গঠনের জন্য শনিবার আদালতে তাদের তলব করা হয়।

পাকিস্তানের শীর্ষ গণমাধ্যম দ্য ডনের খবরে বলা হয়, পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এফআইএ) ২০২০ সালের ডিসেম্বরে শেহবাজ শরীফ ও হামজা শেহবাজের বিরুদ্ধে লাহোরের বিশেষ আদালতে মামলা দায়ের করে। তাদের বিরুদ্ধে চিনি কেলেঙ্কারির ওই মামলায় ১৬ বিলিয়ন রুপি পাচারে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়।

যদিও এই মামলায় ইতিমধ্যে পাক প্রধানমন্ত্রী ও তার ছেলে আগাম জামিন পেয়েছেন। শেহবাজের আইনজীবী আমজাদ পারভেজ আদালতকে বলেছেন, ‌প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফের শরীর ভালো নয়। যে কারণে তাকে ভ্রমণ এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া গতকাল বৈরী আবহাওয়া ছিল। তাই তিনি আজ আসেননি।

এদিকে, শেহবাজ পুত্র হামজার আইনজীবী রাও আওরঙ্গজেব বলেছেন, পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) নেতার পিঠে তীব্র ব্যথা রয়েছে। আদালতের হাজিরা থেকে অব্যাহতি চেয়ে করা আবেদনের সঙ্গে তিনি মেডিক্যাল রিপোর্ট জমা দিয়েছেন।

২০২০ সালে দায়ের করা এই মামলার অভিযোগে বলা হয়, পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালে আখ ক্রয়, চিনি উৎপাদন ও বিপণন প্রক্রিয়ায় অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে হাজার হাজার কোটি লোপাটের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা রয়েছে শেহবাজ শরীফ, তার দুই ছেলে ও এজাহারভূক্ত অন্যান্য আসামিদের। পাঞ্জাব প্রদেশের কয়েকজন চিনি কল মালিকও এই দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত।

এতে আরও বলা হয়, বিদেশের বিভিন্ন ব্যাংকে শেহবাজের পরিবারের সদস্যদের বেনামে ২৮টি অ্যাকাউন্ট রয়েছে। সেসব ব্যাংকে হুন্ডির মাধ্যমে পাচার করা হয়েছে এ অর্থ। রাজনীতির পাশপাশি চিনির ব্যবসা রয়েছে পাকিস্তানের শরীফ পরিবারের। আল-আরাবিয়া মিলস নামে একাধিক চিনির কারখানা রয়েছে এই পরিবারের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here