বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ; ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে তরুণীর অবস্থান

0
47

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছে বিয়ের দাবিতে শারাফাত হোসেন সোহাগ নামের এক ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে অবস্থান নিয়েছেন এক তরুণী (২২)। গতকাল শনিবার (৩০ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে হারাগাছ পৌর এলাকার মিয়াপাড়ায় শারাফাতের বাসায় অবস্থান নেন ওই তরুণী। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাকে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

হারাগাছ পৌর এলাকার মিয়াপাড়ার ওই তরুণী রংপুর সরকারি কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। পাশাপাশি রংপুর আইন কলেজে প্রথম বর্ষে অধ্যয়নরত। প্রেমিক শারাফাত হোসেন সোহাগ একই এলাকার বস্তা ব্যবসায়ী মোশাররফ হোসেনের ছেলে। সোহাগ স্থানীয় হারাগাছ সরকারি কলেজের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্র। এছাড়া তিনি ওই কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি।

বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেওয়া তরুণী জানান, প্রায় দেড় বছর ধরে তাদের প্রেমের সম্পর্ক। বিভিন্ন সময় তারা শারীরিক সম্পর্কেও লিপ্ত হন। একপর্যায়ে বিয়ের জন্য চাপ দিলে প্রেমিক সোহাগ টালবাহানা করতে থাকেন। এ অবস্থায় তিনি জানতে পারেন সোহাগ অন্য জায়গায় বিয়ে করেছেন। উপায় না পেয়ে শনিবার বিকেলে সোহাগের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেন তিনি।

এ সময় সোহাগের পরিবারের সদস্যরা তাকে মারধর করেন বলেও অভিযোগ করেন তরুণী। এদিকে ঘটনার পর থেকে গা ঢাকা দিয়েছেন সোহাগ। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তরুণীকে থানায় নিয়ে যায়।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের হারাগাছ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম বলেন, শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে থানায় নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে নিরাপত্তার স্বার্থে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে। তিনি বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছেন। আজ তার মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here