মায়ের জন্য সৎপাত্রের সন্ধান চাইলো ছেলে

0
81

মায়ের একাকিত্ব দূর করতে সৎপাত্রের সন্ধান চেয়েছেন ছেলে। ফেসবুকে পাত্র-পাত্রী খোঁজার অন্যতম বড় প্লাটফর্ম ‘বিসিসিবি ম্যাট্রিমনিয়াল’ গ্রুপে সম্প্রতি এক বিজ্ঞপ্তি দিয়ে পাত্রের করেছেন মায়ের ছোট সন্তান।

সন্তানদের বাবা মারা গেছেন প্রায় দুই বছর আগে। দুই সন্তানই নিজেদের ব্যবসাসহ কাজকর্মে ব্যস্ত থাকেন বলে তারা মাকে ভালোভাবে সময় দিতে পারেন না। কিন্তু মা যেন একাকিত্বে না ভোগেন, তিনি যেন ভালো থাকেন, সেই প্রত্যাশা থেকেই তারা  মায়ের জন্য পাত্র চেয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। 

ঢাকার কেরানীগঞ্জের বাসিন্দা মোহাম্মদ অপূর্ব বিজ্ঞপ্তিটি পোস্ট করেছেন। তিনি ‘জি অ্যান্ড টেক’ নামে একটি অনলাইন ব্যবসা-প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা এমডি। তার বড় ভাই ইমরান হোসেন। পেশায় ব্যবসায়ী ইমরান বিয়ে করেছেন, তার পাঁচ বছরের এক সন্তানও আছে।

বিজ্ঞপ্তির পাত্রী অর্থাৎ অপূর্বের মায়ের নাম ডলি আক্তার। তার বয়স ৪২ বছর। পড়েছেন অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত। ইমরান-অপূর্বর বাবা ঈয়াদ আলী ক্যানসারসহ বিভিন্ন রোগে ভুগে বছর দুয়েক আগে মারা যায়, তাই মাকে পারিবারিকভাবেই বিয়ে দেওয়ার ইচ্ছের কথা জানিয়ে অপূর্ব বিজ্ঞপ্তিতে লিখেছেন, বাবা মারা গেছেন, তাই আম্মুর জন্য পাত্র খুঁজছি।

মায়ের জন্য কেমন পাত্র চান, অপূর্ব সেই তথ্যও বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন। তার সঙ্গে মায়ের ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, পাত্র ঢাকার আশপাশের বাসিন্দা হলে ভালো। ব্যবসায়ী বা জব হোল্ডার, শিক্ষাগত যোগ্যতা কম হলেও সমস্যা নেই। তবে পাত্রকে নামাজি হতে হবে। মানে একদম সাদামাটা একজন যিনি আম্মুর জীবনের বাকি চলার পথগুলোর সঙ্গী হবেন। বয়স ৪২-৫০ বছর হলে ভালো হয়।

বিজ্ঞপ্তিটি পোস্ট হওয়ার পর ইতিবাচক মন্তব্যই করছেন নেটিজনেরা। প্রতিবেদনটি লেখা পর্যন্ত অপূর্বর সেই বিজ্ঞপ্তিতেই মন্তব্য পড়েছে প্রায় ৬০০। এর প্রায় সবই প্রশংসাসূচক।

মোহনা আফরোজ নামে একজন লিখেছেন, ‘কী দারুণ প্রগতিশীল মানসিকতার সন্তান তিনি গড়ে তুলেছেন, অভিবাদন!’

এই ফেসবুক পোস্টে ডলি আক্তারের জন্যই নেটিজনেরা শুভকামনা জানিয়েছেন। লাম মীম আহমেদ নামে একজন লিখেছেন, ‘এটা খুবই অনুপ্রেরণামূলক। আশাকরি, আপনার মা তার জন্য যোগ্য একজন জীবনসঙ্গী পাবেন’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here