বোমা হামলায় তালেবানের ধর্মীয় নেতা রহিমুল্লাহ হাক্কানি নিহত

0
610

বৃহস্পতিবার এক বোমা হামলায় নিহত হয়েছেন তালেবানের শীর্ষ পর্যায়ের ধর্মীয় নেতা শেখ রহিমুল্লাহ হাক্কানি। তালেবান প্রশাসনের মুখপাত্র বিলাল কারিমি বলেন, ‘খুব দুঃখের সাথে জানানো হচ্ছে যে সম্মানিত আলেম শেখ রহিমুল্লাহ হাক্কানি শত্রুদের কাপুরুষোচিত হামলায় শহীদ হয়েছেন’।

ইতিমধ্যেই সশস্ত্র গোষ্ঠী আইএসআইএল (আইএসআইএস) এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। চারটি তালেবান সূত্রের মাধ্যমে জানা যায় যে, ‘হামলাকারী এমন একজন ছিলেন যিনি আগে তার পা হারিয়েছিলেন। একটি প্লাস্টিকের কৃত্রিম পায়ে সে বিস্ফোরক লুকিয়ে রেখেছিল’।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন সিনিয়র তালেবান কর্মকর্তা বলেন, ‘এই হামলাকারী ব্যক্তিটি কে ছিল এবং কে তাকে শেখ রহিমুল্লাহ হাক্কানির ব্যক্তিগত অফিসে প্রবেশের জন্য নিয়ে এসেছিল তা আমরা তদন্ত করছি। এটি আফগানিস্তানের ইসলামিক এমিরেটের জন্য একটি বিশাল ক্ষতি’।

পরে বৃহস্পতিবার আইএসআইএল তাল টেলিগ্রাম চ্যানেলে হামলার দায় স্বীকার করে বলেছে, হামলাকারী রহিমুল্লাহ হাক্কানির অফিসের ভেতরে একটি বিস্ফোরক ভেস্টে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিল।

এসআইটিই (SITE) নামক একটি পর্যবেক্ষণকারী গ্রুপ আইএআইএল একটি বিবৃতি অনুবাদ করে জানায়, হাক্কানি ছিলেন তালেবান পক্ষের সবচেয়ে বিশিষ্ট উকিল এবং আইএসআইএল এর বিরুদ্ধে যুদ্ধে প্রধান উদ্বুদ্ধকারী।

হাক্কানি তালেবানের একজন বিশিষ্ট পন্ডিত ছিলেন। এর আগেও বেশকিছু হামলা থেকে তিনি বেঁচে গিয়েছিলেন, যার মধ্যে ২০২০ সালে পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলে পেশোয়ার শহরের একটি বড় বিস্ফোরণ উল্লেখযোগ্য। এই বিস্ফোরণে অন্তত ৭ জন নিহত হয়েছিল বলে দাবি করেছিল আইএসআইএল গোষ্ঠী।

হাক্কানির মৃত্যুর খবর জানার পর অনেক তালেবান কর্মকর্তারা সোশ্যাল মিডিয়ায় শোক প্রকাশ করেন। কাবুল পুলিশের প্রাক্তন মুখপাত্র মবিন খান এক টুইটে লিখেন, ‘আপনি আপনার দায়িত্ব পালন করেছেন। ভাগ্যকে ঠেকানো যাবেনা। কিন্তু মুসলিম সম্প্রদায় এতিম হয়ে গেছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here