সরকারি কর্মকর্তাদের তালিকায় একজনের ২৯ বই; যা বললেন জনপ্রশাসন সচিব

0
68

মাঠ পর্যায়ে কর্মকর্তাদের পাঠাভ্যাস গড়ে তোলার জন্য বই কেনার তালিকায় অতিরিক্ত সচিবের ২৯টি বই থাকা নিয়ে চলছে ব্যাপক সমালোচনা। নেটমাধ্যমে ভাইরাল হবার পর থেকেই চলছে নানা প্রতিক্রিয়া। তবে এই তালিকা পরীক্ষার পর সংশোধন কিংবা বাতিল করা হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কে এম আলী আজম।

আজ রবিবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা জানান তিনি।

কে এম আলী আজম বলেন, গতকাল সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে যে একজন অতিরিক্ত সচিবের ২৯টি বই এ তালিকায় স্থান পেয়েছে। এ বিষয়টি আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবো, যদি এর সত্যতা প্রমাণ হয়, কোনো সমস্যা যদি দেখি তাহলে তালিকা বাতিল বা সংশোধনের ব্যবস্থা নেবো। এসময় অন্যান্য যে ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত আমরা তা করবো।

তিনি বলেন, তালিকায় একজনেরই যে ২৯টি বই- এ তথ্য আমার জানা ছিল না। গণমাধ্যমে আসার পর এটা জানতে পেরেছি। আমরা এটি পরীক্ষা করছি। সে অনুসারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো। এটি নিয়ে আগামীকাল সবার সঙ্গে বসে সিদ্ধান্ত নেবো।

উল্লেখ্য, গত অর্থবছরের শেষভাগে সরকারি কর্মকর্তাদের বই পাঠের অভ্যাস বাড়াতে সাড়ে ৯ কোটি টাকার বরাদ্দ করা হয়। এতে ১ হাজার ৪৭৭ টি বইয়ের নাম উল্লেখ করা হয়। আর এতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব নবীরুল ইসলামের ২৯ টি বই ঠাঁই পেয়েছে।

জনপ্রশাসন সচিব বলেন, উপজেলা, জেলা এবং বিভাগীয় পর্যায়ে কর্মকর্তাদের মধ্যে পাঠাভ্যাস গড়ে তোলার জন্য তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী চার বছর ছোট ছোট বরাদ্দ দিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক ও বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে পাঠাগার করা হচ্ছে। এখন এই কার্যালয় (জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়) থেকে ১৪০০ বইয়ের তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। এমন নয় যে এই তালিকা থেকে কিনতে হবে। এটির আলোকে বা বিবেচনায় রেখে কিনতে বলা হয়েছে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here