কর্মী সংকটে আওয়ামী লীগের সম্মেলন স্থগিত

0
479

বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শুরু হয়েছে জামালপুর সদর উপজেলার ঘোড়াধাপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। সুবিশাল মঞ্চ আর তার সামনে সাজানো রয়েছে সারি সারি চেয়ার।

বেলা বাড়ার কিছু সময় পর জেলা আওয়মী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক অন্যান্য নেতাকর্মীসহ মঞ্চে ওঠেন। নেতাকর্মীদের বারবার মঞ্চে আসার আহ্বান জানানো হলেও কে শুনে কার কথা। সম্মেলন যথাসময়ে শুরু হলেও মঞ্চের সামনে অর্থাৎ কর্মীদের উপস্থিত ছিল প্রায় ৪ ভাগের একভাগ। প্যান্ডেলের নিচে সারিবদ্ধ চেয়ার বসানো থাকলেও ছিল না তেমন কর্মী ও সমর্থক।

এমন পরিস্থিতিতে ক্ষুব্ধ হন মঞ্চ বসে থাকা জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা। মঞ্চ থেকে মাইক দিয়ে জামালপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হাফিজুর রহমান স্বপন বার বার কর্মী-সমর্থকদের প্যান্ডেলের নিচে অর্থাৎ সম্মেলনে আসার জন্য আহবান জানালেও কেউ তার কথায় সাড়া দেননি। এদিকে সম্মেলনে উপস্থিত কর্মীর চেয়ে মঞ্চে অতিথির সংখ্যাই বেশি ছিল।

একপর্যায়ে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়ে বলেন, নিজেদের মধ্যে অন্তঃদ্বন্দ্ব থাকার কারণেই এই ঘোড়াধাপ ইউনিয়নটি ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে এসে দাঁড়িয়েছে। এই ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সম্পাদকের ব্যর্থতার কারণেই আজকের এই পরিণতি। তিনি উপস্থিত কর্মী-সমর্থকদের কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন, আপনারাই বলেন এই সভাপতি, সম্পাদকের কি আর নেতৃত্বে থাকা চলে কি চলে না? পরে তিনি চলমান ঘোড়াধাপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন স্থগিত ঘোষণা করেন এবং একইসঙ্গে বর্তমান কমিটিরও বিলুপ্ত ঘোষণা করেন। পরবর্তীতে সম্মেলনের তারিখ জানানো হবে বলে জানান।

সম্মেলনে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. এমএ মান্নান খান উদ্বোধনী বক্তব্যে বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের নির্দেশনায় আজ কমিটি সম্মেলন স্থগিত ঘোষণা করা হলো।

তিনি কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে সমবেদনা জানিয়ে বলেন, এই ধরনের সম্মেলন কখনও আশা করেনি। আগামীতে এই ঘোড়াধাপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করতে জেলা আওয়ামী লীগের নির্দেশনায় পরবর্তীতে তারিখ ঘোষণা করা হবে। ওই সম্মেলনে তিনি সবার উপস্থিত থাকার জন্য আহবান জানান।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার সকালে ইউনিয়নের জোকা ভারুয়াখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুল হকের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো. মতিউর রহমানের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী, সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার মো. মোজাফ্ফর হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আশরাফ হোসেন তরফদার, সদস্য এম খলিলুর রহমান, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবুল হোসেন, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফারজানা ইয়াসমিন লিটা প্রমুখ।

সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও তিনি উপস্থিত ছিলেন না।  

সম্মেলন স্থগিত ও কমিটি বিলুপ্ত প্রসঙ্গে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ফজলুল হক জানান, প্রচণ্ড গরমের কারণে লোকজন উপস্থিত হয়েও প্যান্ডেলের নিচে যায়নি। তারা বিভিন্ন জায়গায় অবস্থান করছিল।

নিজেদের ব্যর্থতা কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান, সম্মেলনকে সাফল্য করতে একটি প্রস্তুতি কমিটি করা হয়েছিল। ওই কমিটির আহবায়ক ছিলেন এম খলিলুর রহমান, সদস্য চান মিয়া আকন্দ, মোজাম্মেল হকসহ বেশ কয়েকজন।

উল্লেখ্য, জামালপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের অন্তর্গত ১৫টি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক গতিশীলতা বাড়াতে ইউনিয়ন সম্মেলন শুরু করে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকালে ঘোড়াধাপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু সম্মেলন শুরু করার প্রায় দেড় ঘণ্টার মাথায় সম্মেলন স্থগিত ঘোষণা ও কমিটি বিলুপ্ত করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here